• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

Executive Summary: the progress on the implementation of United Nations Convention Against Corruption (UNCAC) in Bangladesh (Bangla)

জাতিসংঘ দুর্নীতিবিরোধী সনদ দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রথম আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত এবং আইনগতভাবে বাধ্যকরী একটি সর্বজনীন দলিল। দুর্নীতির ব্যাপকতা রোধে আন্তর্জাতিক সহযোগিতার গুরুত্বকে উপলব্ধি করে এবং দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলনকে অধিকতর ফলপ্রসূ করতে জাতিসংঘ দুর্নীতিবিরোধী সনদ প্রণয়ন করা হয়। ২০০৩ সালের ৩১ অক্টোবর জাতিসংঘ দুর্নীতিবিরোধী সনদটি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ৫৮/৪ নং রেজলুশনের মাধ্যমে গৃহীত হয় এবং একই বছরের ৯-১১ ডিসেম্বর মেক্সিকোর মেরিডায় অনুষ্ঠিত উচ্চ-পর্যায় রাজনৈতিক স্বাক্ষর সম্মেলনে সনদটি স্বাক্ষরের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। পরবর্তীতে ২০০৫ সালের ১৪ ডিসেম্বরে সনদটি বলবৎ হয়। এটিই প্রথম আইনগত-বাধ্যবাধকতাপূর্ণ একটি দুর্নীতিবিরোধী চুক্তি যা এর সদস্য রাষ্ট্রগুলোর জন্য প্রযোজ্য। ২৯ মে ২০১৩ পর্যন্ত ১৪০টি দেশ ও সংস্থা এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে এবং ১৬৭টি দেশ ও সংস্থা এই চুক্তির পক্ষভুক্ত হয়েছে।

সরকারের সাথে নাগরিক সমাজের প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ অ্যাডভোকেসি২০০৭ সালের জানুয়ারিতে দায়িত্ব গ্রহণকারী তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দুর্নীতিবিরোধী অবস্থান এবং বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার দাবি ও ভূমিকার ধারাবাহিকতায় ২০০৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ সনদের সদস্যরাষ্ট্র হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হয়। দেশব্যাপি দুর্নীতিবিরোধী চাহিদা এবং পরবর্তীকালে রাজনৈতিক দলগুলোর দুর্নীতিবিরোধী নির্বাচনী অঙ্গীকার এ সনদের বাস্তবায়নের সুযোগ ও প্রত্যাশার সৃষ্টি করেছে।

পুরো সার-সংক্ষেপের জন্য ক্লিক করুন