• header_en
  • header_bn

Policy Brief on Primary Education

দেশের প্রাথমিক শিক্ষাকে সার্বজনীন, অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক করার লক্ষ্যে সরকার শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান, বেসরকারি রেজিস্টার্ড প্রাথমিক বিদ্যালয়কে সরকারিকরণ, সুবিধা-বঞ্চিত, স্কুল-বহির্ভূত, ঝরে পড়া এবং শহরের কর্মজীবী দরিদ্র শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষার আওতায় আনার জন্য প্রকল্প গ্রহণ, উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা নীতির খসড়া ও শিক্ষা আইন, ২০১৩ সহ বিভিন্ন উদ্যোগ ও কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ইতিমধ্যেই প্রাথমিক শিক্ষা ক্ষেত্রে শিশু ভর্তি ও প্রাথমিক শিক্ষা চক্র সমাপনীর হার বৃদ্ধি, ঝরে পড়ার হার হ্রাস, ছেলে-মেয়ের সংখ্যাসাম্য বৃদ্ধি, নারী শিক্ষক নিয়োগের হার বৃদ্ধি, সর্বজনীন সমাপনী পরীক্ষা প্রচলন, তথ্য-প্রযুক্তির সন্নিবেশ, সঠিক সময়ে বই প্রাপ্তি বিভিন্ন অগ্রগতি লক্ষণীয়। প্রাথমিক শিক্ষাখাতে গৃহীত এ সকল অগ্রগতি থাকলেও এ খাতে সুশাসনের ক্ষেত্রে নানাবিধ ঘাটতি এবং তার ফলে বহুমাত্রিক দুর্নীতি বিদ্যমান থাকায় অনেক ক্ষেত্রেই প্রাথমিক শিক্ষা ব্যহত হচ্ছে। ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) পরিচালিত প্রাথমিক শিক্ষা ক্ষেত্রে বিভিন্ন গবেষণা ও অধিপরামর্শ সভায় প্রাথমিক শিক্ষা খাতে বিরাজমান বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ সম্পর্কিত তথ্য উঠে আসে। এসব তথ্য বিশ্লেষণের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষায় বিরাজমান চ্যালেঞ্জসমূহ উত্তরণে সংশ্লিষ্ট অংশীজনের বিবেচনার জন্য এই পলিসি ব্রিফটি উপস্থাপন করা হলো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক দেশে সর্বক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা, বিশেষকরে দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য সহনশীলতার ঘোষণার প্রেক্ষিতে প্রাথমিক শিক্ষা খাতে উপযোগী ইতিবাচক পরিবর্তনে এই পলিসি ব্রিফে উত্থাপিত সুপারিশমালা সহায়ক হবে বলে টিআইবি বিশ্বাস করে। 
পুরো পলিসি ব্রিফের জন্য এখানে ক্লিক করুন।