• header_en
  • header_bn

Policy Brief on Land Management and Services in Bangladesh: Governance Challenges and Way-forward

সরকার সম্প্রতি ভূমিখাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এসব পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে তৃণমূল পর্যায়ে সেবাগ্রহীতাদের থেকে প্রাপ্ত অভিযোগের ভিত্তিতে শুনানীর আয়োজন ও তার আইনগত নিষ্পত্তির উদ্যোগ, নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে হয়রানিমুক্ত ও দুর্নীতিমুক্তভাবে কাক্সিক্ষত ভূমি সেবা প্রদানে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ এবং তৃণমূল পর্যায়ে ভূমি মেলার আয়োজন ইত্যাদি যা টিআইবি’র বিভিন্ন গবেষণা প্রতিবেদনে প্রস্তাবিত সুপারিশের সাথে অনেকাংশে সামঞ্জস্যপূর্ণ। সরকারের এসব উদ্যোগ ভুমি খাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যায়। তবে ভূমি খাতের অনিয়ম-দুর্নীতির ব্যাপকতার পরিপ্রেক্ষিতে আরো অধিকতর উদ্যোগ গ্রহণের প্রয়োজন রয়েছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ খাতের বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির খবর নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে। টিআইবি ২০১৫ সালে ভূমি খাতের ব্যবস্থাপনা ও সেবা কার্যক্রমে  সুশাসনগত চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত করার লক্ষ্যে ‘ভূমি ব্যবস্থাপনা ও সেবা কার্যক্রম: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক একটি গবেষণা পরিচালনা করে। এছাড়া টিআইবি ২০১৫ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে তৃণমূল পর্যায়ে ভূমি সেবা জনবান্ধব করার অংশ হিসেবে দেশের নয়টি উপজেলায় ভূমি সেবার ওপর বেজলাইন জরিপ পরিচালনা করেছে। ২০১৭ সালে টিআইবি’র ‘নাগরিক সেবায় ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার: ভূমিকা, সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক গবেষণায় জমির পর্চা সরবরাহে ডিজিটাল সেবাকে অন্যতম কেস হিসেবে বিবেচনা করা হয়। টিআইবি’র উপরোক্ত গবেষণা ও জরিপসমূহের ফলাফলের ভিত্তিতে ভূমি ব্যবস্থাপনা ও সেবা কার্যক্রমে সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিবেচনার জন্য হালনাগাদ এই পলিসি ব্রিফটি উপস্থাপন করা হলো।
পলিসি ব্রিফ এখানে