• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

ভিআইপি’দের চলাচলে আলাদা লেনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রস্তাব অসাংবিধানিক ও বৈষম্যমূলক: প্রত্যাহারের আহ্বান টিআইবি’র

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ভিআইপি’দের চলাচলে আলাদা লেনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রস্তাব অসাংবিধানিক ও বৈষম্যমূলক: প্রত্যাহারের আহ্বান টিআইবি’র
 
ঢাকা, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮: আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, জরুরি সেবার যানবাহন ও ভিআইপিদের চলাচলে রাজধানীতে আলাদা লেন করার জন্য সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের কাছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রস্তাবকে অসাংবিধানিক ও বৈষম্যমূলক আখ্যায়িত করে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এবং তা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে।
 
এক বিবৃতিতে টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “গণমাধ্যম ও অন্যান্য নির্ভরযোগ্য সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, জরুরি সেবার যানবাহন ও ভিআইপিদের চলাচলে রাজধানীতে আলাদা লেন করার জন্য সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের কাছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রস্তাব পাঠিয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এই প্রস্তাবে টিআইবি উদ্বিগ্ন। কারণ এ ধরনের প্রস্তাব সংবিধানের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন, বৈষম্যমূলক ও ক্ষমতার চূড়ান্ত অপব্যবহারের শামিল। এই প্রস্তাব সংবিধানে বর্ণিত- সুযোগের সমতা, আইনের দৃষ্টিতে সমতা এবং ধর্ম, গোষ্ঠী প্রভৃতি কারণে কোন নাগরিকের প্রতি রাষ্ট্রের বৈষম্য প্রদর্শন না করার মহান নীতিসমূহের লঙ্ঘন। টিআইবি মনে করে, আলাদা লেন করে ভিআইপি ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ কোন বিশেষ মহলকে অসাংবিধানিক ও অনৈতিক সুবিধা প্রদানের উদ্যোগ গণতান্ত্রিক চর্চার জন্য আত্মঘাতীমূলক। সরকার এ ধরণের অনিয়মকে কোনভাবেই উৎসাহিত করবে না, আমরা এই প্রত্যাশা করি। ”

ড. জামান বলেন, “প্রস্তাবটি উত্থাপন ও সমর্থনে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুক্তি- ‘ভিআইপিরা ডান দিক দিয়ে যান, উল্টো দিক দিয়ে যান, নানা রকম ঝামেলা হয়’- সম্পূর্ণ অসমর্থনযোগ্য। কারণ পরিচয় কিংবা অবস্থান নির্বিশেষে সবাই আইন মেনে চলতে বাধ্য।  যেকোন প্রকার অন্যায্য ও আইনবহির্ভূত আচরণের কারণে অসাংবিধানিক ও বৈষম্যমূলক নিয়ম চালু করা অবিমৃশ্যকারীতামাত্র। এধরণের প্রস্তাব ক্ষমতাশালীদের অনৈতিক আচরণে উৎসাহিত করার পাশাপাশি ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় চ্যালেঞ্জ ও জনদূর্ভোগ বৃদ্ধি করবে উল্লেখ করে তিনি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এধরনের প্রস্তাব অবিলম্বে প্রত্যাহার করে এসংক্রান্ত কোন বিধি প্রণয়ণ থেকে বিরত থাকতে সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে আহ্বান জানান।

ড. ইফতেখারুজ্জামান আরো বলেন, “আলাদা লেনের যৌক্তিকতা প্রমাণে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুক্তিই প্রমাণ করে যে, ভিআইপি তকমাধারী অনেকেই প্রতিনিয়ত প্রচলিত ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন করে আসছেন। অবিলম্বে এই প্রবণতা বন্ধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে এবং আইন লঙ্ঘনকারী যেই হোক না কেন তাকে আইনের আওতায় এনে পরিবহণ চলাচল ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে হবে।”

উল্লেখ্য, গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী গত ৫ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব   মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের জানান,  আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, জরুরি সেবার যানবাহন ও ভিআইপিদের চলাচলে রাজধানীতে আলাদা লেন করার জন্য সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের কাছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রস্তাব করেছে। ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ-ডিটিসিএ এর নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ আহমেদও প্রস্তাব পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এই প্রেক্ষিতে টিআইবি ভিআইপি’দের জন্য আলাদা লেন তৈরীর প্রস্তাবের বিরোধিতা করে এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করে নাগরিক অধিকার রক্ষায় সকলের জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করার আহ্বান জানায়।

গণমাধ্যম যোগাযোগ:

রিজওয়ান-উল-আলম
পরিচালক (আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন)
ই-মেইল: This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.
ফোন: ০১৭১৩ ০৬৫০১২