• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

নগর উন্নয়নে জবাবদিহিতা-সহায়ক ব্যবস্থার কাঠামো গড়ে তোলার আহবান

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি
নগর উন্নয়নে জবাবদিহিতা-সহায়ক ব্যবস্থার কাঠামো গড়ে তোলার আহবান 
ঢাকা, ২ মার্চ ২০১৭: বাংলাদেশের নগর উন্নয়নে গণতান্ত্রিক বিকেন্দ্রীকরণ ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতে জবাবদিহি-সহায়ক ব্যবস্থার কাঠামো নিজ উদ্যোগে গড়ে তুলতে হবে। নগর উন্নয়নে উর্দ্ধগামী জবাবদিহিতায় কার্যক্ষেত্রে বিকেন্দ্রীকৃত প্রতিষ্ঠানের উপস্থিতির পাশাপাশি নিম্নগামী জবাবদিহিতা নিশ্চিতে সক্রিয় নাগরিক অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা প্রয়োজন।
আজ ২ মার্চ ২০১৭ ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)’র আয়োজনে ‘গণতান্ত্রিক বিকেন্দ্রীকরণ ও নগর উন্নয়নে জবাবদিহিতা’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় উপস্থিত বিশেষজ্ঞরা এ অভিমত ব্যক্ত করেন। টিআইবি’র ঢাকা কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ আলোচনায় ‘দুর্নীতি ও শাসনকার্যে উদ্ভাবনী গবেষণা ২০১৫-২০১৯’ শীর্ষক টিআইবি গবেষণা ফেলোশিপ এর আওতায় পরিচালিত  ‘গণতান্ত্রিক বিকেন্দ্রীকরণ ও নগর উন্নয়নে জবাবদিহিতা:  খুলনা সিটি কর্পোরেশন, খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এবং যশোর পৌরসভার উপর একটি কেস স্টাডি’ শীর্ষক গবেষণার ফলাফল ও সুপারিশসমূহ তুলে ধরেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও গ্রামীন পরিকল্পনা ডিসিপ্লিন-এর সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. আশিক উর রহমান।
নগর উন্নয়নের সাথে সম্পর্কিত বিকেন্দ্রীকৃত প্রতিষ্ঠানসমূহের জবাবদিহিতা পরিমাপ, এবং নগর উন্নয়নে প্রচলিত পদ্ধতিতে বিকেন্দ্রীকরণের প্রাতিষ্ঠানিক ধরণ ও জবাবদিহিমুলক ব্যবস্থার অগ্রগতি - এর মধ্যকার আন্তসম্পর্ক সনাক্ত করার লক্ষ্যে নগর উন্নয়ন শাসন পদ্ধতির উদ্দেশ্য, বর্তমান বাস্তবতা ও চ্যালেঞ্জসমূহকে বিবেচনায় নিয়ে  গবেষণাটি পরিচালনা করা হয়।
রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক), খুলনা সিটি করপোরেশন, খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ, যশোর পৌরসভা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট), খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), নগর উন্নয়ন অধিদপ্তর, বাংলাদেশ ইন্স্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বিআইপি) সহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের বিশেষজ্ঞ ও অংশীজনের অংশগ্রহণে গোলটেবিল আলোচনায় আরো উপস্থিত ছিলেন টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান, উপ-নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ড. সুমাইয়া খায়ের এবং রিসার্চ অ্যান্ড পলিসি বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ রফিকুল হাসান।

 

গণমাধ্যম যোগাযোগ:
রিজওয়ান-উল-আলম 
পরিচালক (আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন)
ফোন: ০১৭১৩ ০৬৫০১২ 
ই-মেইল: This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.