• header_en
  • header_bn

‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে একসাথে ’ প্রতিপাদ্যে ৯ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবসে কার্যকর দুর্নীতি প্রতিরোধে টিআইবি’র আহ্বান

ঢাকা, ৮ ডিসেম্বর ২০১৬: ৯ ডিসেম্বর জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস উপলক্ষে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে একসাথে’- এই প্রতিপাদ্যে প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও বিভিন্ন কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে দিবসটি উদ্যাপন করছে টিআইবি। বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে মানববন্ধন, টিআইবি’র অনুপ্রেরণায় গঠিত তরুণদের প্লাটফর্ম ‘ইয়ুথ এনগেইজমেন্ট অ্যান্ড সাপোর্ট’ (ইয়েস) এবং ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যদের দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকার জন্য অনুপ্রেরণা পুরস্কার, দুর্নীতিবিরোধী কার্টুন ও আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শনী, দুর্নীতিবিরোধী রচনা ও বক্তৃতা প্রতিযোগিতা উল্লেখযোগ্য।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে আজ ৮ ডিসেম্বর সকাল ১০.৩০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে এক দুর্নীতিবিরোধী মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ. আ. ম. স. আরেফিন সিদ্দিক। টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান ছাড়াও টিআইবি’র অনুপ্রেরণায় গঠিত সারাদেশের সচেতন নাগরিক কমিটির ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্য, ঢাকার বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে গঠিত ইয়েস গ্রুপের সদস্য এবং সমমনা সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনের পর দুপুরে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে ‘দুর্জয় তারুণ্য, দুর্নীতির বিরুদ্ধে একসাথে’- এই প্রতিপাদ্যে ইয়েস এবং ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যদের মধ্যে অনুপ্রেরণা পুরস্কার প্রদান করা হয়। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে মূখ্য আলোচক হিসেবে বিশিষ্ট কথা সাহিত্যিক ও টিআইবি’র ট্রাস্টি বোর্ডের মহাসচিব সেলিনা হোসেন বলেন, ‘‘আজকের তারুণ্যের শক্তি দেশের তারুণ্যের শক্তি। সকল অশুভ শক্তিকে প্রতিরোধ করে এই তারুণ্যের শক্তিকে অবলম্বন করে সুন্দর বাংলাদেশের দিকে অগ্রসর হতে হবে।’’ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন টিআইবি’র ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারপারসন এডভোকেট সুলতানা কামাল। তিনি তরুণদের উদ্দেশে বলেন, ‘‘আমাদের মুক্তিযুদ্ধের মূল লক্ষ্য ছিল বৈষম্যমুক্ত, শোষণ ও বঞ্চনাহীন সমাজ বিনির্মাণ করা। আজকের তারুণ্যকে মুক্তিযুদ্ধের সেই চেতনা বাস্তবায়নে কার্যকর ভূমিকা পালন করতে হবে।’’ টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘‘তরুণদেরকে মূল্যবোধ এবং সততা ও নিষ্ঠার চর্চা করতে হবে। একটি সুন্দর, শোষণহীন ও দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশের প্রত্যয়ে প্রত্যেককে নিজ নিজ অবস্থান থেকে চেষ্টা করতে হবে। আজকের তরুণরাই পারবে বাংলাদেশকে দুর্নীতিমুক্ত করতে।’’

দিবসটি উদযাপনের অংশ হিসেবে আজ বিকাল ৪টায় রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ দৃক গ্যালারীতে ‘দুর্নীতিবিরোধী কার্টুন ও আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা ২০১৬’ এর পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। একই সাথে বিজয়ী ও বিশেষ মনোনয়নপ্রাপ্ত কার্টুনিস্ট ও আলোকচিত্রীদের মাঝে পুরস্কার ও সনদ বিতরণ এবং নির্বাচিত কার্টুন ও আলোকচিত্র নিয়ে সপ্তাহব্যাপী প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত জোহান ফ্রিসেল। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন টিআইবি ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারপারসন অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন টিআইবি’র উপ-নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ড. সুমাইয়া খায়ের।

এবার ‘দুর্নীতিবিরোধী কার্টুন প্রতিযোগিতা ২০১৬’ এর ‘ক’ বিভাগে (১৩-১৮ বছর) ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অধিকার করেন যথাক্রমে মাহাতাব রশিদ, মারজিয়া রহমান ও মিনহাজুর রহমান মিনহাজ। আর ‘খ’ বিভাগে (১৯-২৫ বছর) ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অধিকার করেন যথাক্রমে আরাফাত করিম, দিপংকর সিংহ ও মো. হাসান মাহমুদ। উভয় গ্রুপের বিজয়ী তিনজনকে যথাক্রমে ৫০ হাজার, ৪০ হাজার ও ৩০ হাজার টাকার চেক, ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়। এছাড়া দু’টি বিভাগ থেকে মোট ৩১ জন কার্টুনিস্টকে বিশেষ মনোনয়ন দেওয়া হয়। উল্লেখ্য, এই দু’টি বিভাগে মোট ৩১৯টি কার্টুন জমা পড়ে।

‘দুর্নীতিবিরোধী আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা ২০১৬’-এ ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অধিকার করেন যথাক্রমে মোহাম্মদ আসাদ, মো. খালিদ রায়হান শাওন ও সাবিনা ইয়াসমিন। বিজয়ী তিনজনকে যথাক্রমে ৫০ হাজার, ৩০ হাজার ও ২০ হাজার টাকার চেক, ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়। এছাড়া মোট ১৮ জন আলোকচিত্রীকে বিশেষ মনোনয়ন দেওয়া হয়। টিআইবি কর্তৃক দ্বিতীয়বারের মত আয়োজিত এই আলোকচিত্র প্রতিযোগিতায় পেশাদার ও সৌখিন আলোকচিত্রীদের কাছ থেকে মোট ১২৩টি আলোকচিত্র জমা পড়ে।

কার্টুন প্রতিযোগিতার বিজয়ী ও বিশেষ মনোনয়নপ্রাপ্ত মোট ৬০টি কার্টুন ও আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার মোট ২৩টি আলোকচিত্র নিয়ে আজ থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত ধানমন্ডির দৃক গ্যালারিতে প্রদর্শনী চলবে। প্রতিদিন বিকাল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য এ প্রদর্শনী উন্মুক্ত থাকবে। কার্টুন ও আলোকচিত্রগুলো দেখতে টিআইবি’র ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

উল্লেখ্য, দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে আজ থেকে আগামী ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ঢাকাসহ দেশের ৮টি বিভাগীয় শহরে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর সাথে যৌথভাবে হিলিয়াম বেলুনের মাধ্যমে দুর্নীতিবিরোধী বার্তা প্রচার করা হবে। একই সাথে আগামী ১১ ডিসেম্বর থেকে তিন মাসের জন্য ঢাকার বিভিন্ন সড়কে ছয়টি বাসের মাধ্যমে দুর্নীতিবিরোধী বার্তা প্রচার করা হবে।

Media Contact