• header_en
  • header_bn

হজ্ব ব্যবস্থাপনায় দুর্নীতির প্রতিকারে স্বাধীন ও নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি টিআইবি’র

ঢাকা, ২ সেপ্টেম্বর ২০১৬: হজ্ব ব্যবস্থাপনায় অনিয়ম ও হজ্বযাত্রীদের সাথে প্রতারণার বিভিন্ন অভিযোগ গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার প্রেক্ষিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) দীর্ঘদিনের অনিয়ম ও প্রতারণার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। সম্পূর্ণ স্বাধীন ও নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে এ খাতে অনিয়ম, প্রতারণা, দুর্নীতির স্বরূপ উদঘাটন করে দোষীদের জবাবদিহিসহ প্রতিকারের উপায় নিরূপণের আহ্বান জানিয়েছে টিআইবি।
আজ এক বিবৃতিতে টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “প্রায় প্রতি বছরের ন্যায় এবারও কতিপয় হজ্ব এজেন্সির বিরুদ্ধে অনিয়ম ও হজ্বযাত্রীদের সাথে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। একের পর এক হজ্ব ফ্লাইট বাতিল, হজ্ব ফ্লাইটে বিলম্ব, হজ্বযাত্রীদের কাছ থেকে অর্থ নিয়ে হজ্বে না পাঠানো, চুক্তিহীন বাড়িতে হাজীদের রাখা, এক বাড়ির হজ্বযাত্রীকে অন্য বাড়িতে ওঠানো, নি¤œমানের খাবার পরিবেশন, চুক্তি অনুযায়ী কাক্সিক্ষত সুবিধাদি না দেওয়াসহ বিভিন্ন অনিয়ম ও প্রতারণার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে হজ্বযাত্রীদের কাছ থেকে। অনিয়ম ও প্রতারণার সাথে জড়িত এসব হজ্ব এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে এক দিকে প্রতারক এজেন্সিগুলোর দৌরাত্ম্য যেমন আরো বৃদ্ধি পাবে, অন্যদিকে ধর্মপ্রাণ হজ্বযাত্রীদের আর্থিক ক্ষতি ও দুর্ভোগ চলতেই থাকবে ”
এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আরো কর্তব্যপরায়ণ ও সংবেদনশীল হওয়া উচিৎ বলে মন্তব্য করে ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, হজ্ব ব্যবস্থাপনায় অনিয়ম-প্রতারণার বিষয়ে হজ্ব কর্তৃপক্ষ ও এজেন্সিগুলো শুধু পরস্পরকে দোষারোপ করে যাচ্ছে, এসব সমস্যার কার্যকর ও স্থায়ী কোনো সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে না। প্রতি বছর প্রতারণার শিকার হাজীদের অভিযোগের প্রতিকার না পাওয়ার বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। অভিযোগের কোনো প্রকার প্রতিকার না হওয়া, প্রতারণা ও দুর্নীতির সাথে জড়িতদের বিচার না হবার কারণে এ খাতে দুর্নীতি ও অনিয়মের  প্রাতিষ্ঠানিকীকরণ হচ্ছে। দোষীগণ বিচারহীনতা উপভোগ করছেন। ধর্মপ্রাণ হাজী ও হজ্ব প্রত্যাশীগণের ভোগান্তি বেড়েই চলেছে। দীর্ঘদিনের পুঞ্জিভূত এ সমস্যা সমাধানের উপায় নিরূপণে স্বাধীন ও নিরপেক্ষ তদন্ত অপরিহার্য বলে মনে করছে টিআইবি।
ড. জামান আরো বলেন, “সৌদি আরবে বাংলাদেশি হজ্বযাত্রীদের দুর্ভোগ এবং হজ্ব এজেন্সিগুলোর অব্যবস্থাপনা ও প্রতারণার বিষয়টি বিশ্ব গণমাধ্যমে প্রতিফলিত হওয়ায় দেশের ভাবমূর্তিও ক্ষুণœ হচ্ছে। অন্যদিকে হজ্ব এজেন্সিগুলোর অনিয়ম ও প্রতারণার বিরুদ্ধে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় হজ্বযাত্রীদের দুর্ভোগের দায়ও অনেকটা সরকারের ওপর বর্তায়। ”
অনিয়ম-প্রতারণার সাথে জড়িত হজ্ব এজেন্সিগুলোকে কালো তালিকাভুক্ত করে সুনির্দিষ্ট মাপকাঠির ওপর ভিত্তি করে পূর্ণাঙ্গ যাচাই-বাছাই করে  শুধু মানসম্মত হজ্ব এজেন্সির মাধ্যমে হজ্বব্রত পালন প্রক্রিয়া প্রতিষ্ঠা করার আহ্বান জানায় টিআইবি।
Media Contact