• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

Youth pledges to fight against corruption on International Youth Day (Bangla)

 

জাগ্রত বিবেক, দুর্জয় তারুণ্য, দুর্নীতি রুখবেই
আন্তর্জাতিক যুব দিবসে তরুণদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে দৃঢ় অঙ্গীকার
ঢাকা, ১২ অগাস্ট ২০১৫: ১২ অগাস্ট জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক যুব দিবস। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে আজ থেকে দুই দিনব্যাপি দুর্নীতিবিরোধী তরুণমেলার আয়োজন করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। ‘জাগ্রত বিবেক, দুর্জয় তারুণ্য, দুর্নীতি রুখবেই’ প্রতিপাদ্যে আজ হাজারো তরুণ দুর্নীতির বিরুদ্ধে তাদের দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করে। প্রথমদিনের কর্মসূচির মধ্যে ছিল দুর্নীতবিরোধী র‌্যালি, প্যানেল আলোচনা, কুইজ ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা ইত্যাদি।
আজ সকাল ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি’র সামনে থেকে একটি র‌্যালি শুরু হয়ে বাংলা একাডেমিতে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক আ. . . . আরেফিন সিদ্দিক। র‌্যালিতে আরো উপস্থিত ছিলেন টিআইবি’র ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারপারসন অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল এবং নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক আ. . . . আরেফিন সিদ্দিক বলেন, “৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর ডাকে এদেশের হাজারো তরুণ মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিল একটি সুশাসিত ও শোষণহীন দেশের প্রত্যাশায়। আমাদের বর্তমান তরুণ প্রজন্মও একইভাবে দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলনে অংশগ্রহণ করবে।”
টিআইবি’র ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারপারসন অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল বলেন, “আমরা চাই এদেশ সৎ ও যোগ্য মানুষের হাতে পরিচালিত হবে। এই তরুণ সমাজই একদিন এদেশ থেকে দুর্নীতি রোধ করে সুশাসিত ও উন্নত দেশ গঠনে নেতৃত দিবে।”
. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “রাজনৈতিক অঙ্গণে সংস্কারের প্রয়োজন। আমাদের জাতীয় সংসদের বেশীরভাগ সদস্যই ব্যবসার সাথে জড়িত। ব্যবসায়ীরা রাজনীতি করবে এতে কোন অসুবিধা নেই। তবে, যে প্রক্রিয়ায় ব্যবসায়ীরা রাজনীতিতে আসেন তা যথাযথ নয়। যে কারণে সংসদ যথাযথভাবে কাজ করতে পারে না।” আমাদের তরুণ সমাজ সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে জাতি গঠণে যথাযথ ও কার্যকর ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
অনুষ্ঠানে দিনব্যাপি বাংলা একাডেমির নজরুল মঞ্চ প্রাঙ্গণে ২৭টি সমমনা সংগঠনের অংশগ্রহণে মেলা চলে। এতে বিভিন্ন সংগঠন তাদের যোগাযোগ উপকরণ ও ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করে। দেশের ৪৫টি সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এলাকা এবং ঢাকায় গঠিত ১৪টি ইয়েস সংগঠনের সদস্যসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণরা মেলা প্রদর্শন করে এসব প্রতিষ্ঠানের কাজ সম্পর্কে সাম্যক ধারণা লাভ করে।
সকাল ১১টায় বাংলা একাডেমির আব্দুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে ‘দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলনে তরুণ সমাজের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত তরুণদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল এবং টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। দিনের দ্বিতীয়ভাগে অনুষ্ঠিত হয় কুইজ, উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা এবং জাতীয় সততা জরিপ ২০১৫ এর ওপর একটি বিশেষ উপস্থাপনা। উপস্থাপনাটি সকলের উদ্দেশ্যে তুলে ধরেন টিআইবি’র গবেষণা ও পলিসি বিভাগের প্রোগ্রাম ম্যানেজার মনজুর--খোদা এবং শাম্মী লায়লা ইসলাম। এ পর্বে উপস্থিত ছিলেন টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান এবং সিভিক এনগেইজমেন্ট বিভাগের পরিচালক উমা চৌধুরী। অনুষ্ঠানের শেষভাগে কুইজ, বিতর্ক এবং দুর্নীতিবিরোধী ভিডিওচিত্র প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
অনুষ্ঠানে দুর্নীতির বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের একটি ভিডিও প্রদর্শিত হয় এবং তরুণদের সংগঠিত করে দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলন পরিচালনা সংক্রান্ত বঙ্গবন্ধুর সর্বশেষ ভাষণের অংশ বিশেষের ট্রান্সক্রিপ্ট বিতরণ করা হয়।
অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় দিন ১৩ অগাস্ট বিকাল ৪টায় ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবর মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে দুর্নীতিবিরোধী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে চাপাঁইনবাবগঞ্জ এর গম্ভীরা, ইয়েস নাট্য দলের নাটক, আবৃত্তি এবং ব্যান্ড দল ‘জলের গান’ এর পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হবে।

Media Contact