• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

TIB organises orientation programme for the women journalists (Bangla)

দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলনে নারী সাংবাদিকদের ভূমিকা শীর্ষক
ওরিয়েন্টেশনের আয়োজন করলো টিআইবি
ঢাকা, ১১ মার্চ ২০১৫: ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আজ রাজধানীর মাইডাস সেন্টারে ‘দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলনে নারী সাংবাদিকদের ভূমিকা’ শীর্ষক এক ওরিয়েন্টেশনের আয়োজন করে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। দুর্নীতি’র কারণে নারী কিভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এবং দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলনে নারী সাংবাদিকরা কিভাবে আরো কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারেন সে বিষয়ে অনুষ্ঠানে বিস্তারিতভাবে আলোকপাত করা হয়। অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্বে স্বাগত বক্তব্য দেন টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন টিআইবি’র উপ-নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ড. সুমাইয়া খায়ের, পরিচালক-গবেষণা ও পলিসি জনাব মো. রফিকুল হাসান ও পরিচালক-সিভিক এনগেইজমেন্ট উমা চৌধুরী। টিআইবি’র প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে বিভিন্ন গণমাধ্যমের বত্রিশজন নারী সাংবাদিক অংশগ্রহণ করেন।
ওরিয়েন্টেশনে ‘দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলনে নারী সাংবাদিকদের ভূমিকা’ শীর্ষক উপস্থাপনা করেন রিজওয়ান-উল-আলম পরিচালক, আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন এবং ‘দুর্নীতি ও নারী’ বিষয়ক উপস্থাপনা করেন কাজী শফিকুর রহমান ম্যানেজার, জেন্ডার, টিআইবি। অনুষ্ঠানের সমাপনী পর্বে অংশগ্রহণকারীরা শিক্ষা-স্বাস্থ্য, স্থানীয় সরকার-ভূমি এবং জলবায়ু অর্থায়ন খাতে সুশাসন বিষয়ে তিনটি দলগত কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন। এতে উল্লিখিত খাতসমূহের বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করে সুশাসন নিশ্চিতকরণে নারী সাংবাদিকরা কী ধরনের ভূমিকা পালন করতে পারেন সে বিষয়গুলো দলীয় উপস্থাপনার মাধ্যমে তুলে ধরা হয়।
স্বাগত বক্তব্যে . ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “দুর্নীতি একটি বৈশ্বিক সমস্যা। আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশে দুর্নীতি সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে প্রধান বাধা। এটি এমন একটি ক্ষেত্র যেখানে প্রত্যেকের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ সংযোগ রয়েছে।” অনেক ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুর্নীতি ও অনিয়ম সাহসের সাথে মোকাবেলা করে নারী সাংবাদিকরাও দুর্নীতিবিরোধী প্রতিবেদন তৈরি এবং প্রকাশের মাধ্যমে দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলনে কার্যকর ভূমিকা পালন করবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশে দুর্নীতি বিষয়ক অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় পেশাদারী উৎকর্ষ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ১৯৯৯ সাল থেকে প্রতি বছর টিআইবি অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পুরস্কার এবং ২০১০ সাল থেকে দেশের বিভিন্ন বিভাগীয়/স্থানীয় পর্যায়ে দুর্নীতি বিষয়ক অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় প্রশিক্ষণের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছে। একই সাথে ২০১২ সাল থেকে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা ফেলোশিপ কার্যক্রম চালু করেছে টিআইবি।

Media Contact