• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

TIB Demands Government Recognition of Right to Know Day (Bangla)

নতুন দু’জন তথ্য কমিশনার নিয়োগ দেওয়াকে স্বাগত জানিয়েছে টিআইবি,
২৮ সেপ্টেম্বর তথ্য অধিকার দিবস হিসেবে সরকারি স্বীকৃতির আহ্বান
ঢাকা, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪: তথ্য কমিশনের সাবেক সচিব নেপাল চন্দ্র সরকার এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের অধ্যাপক খুরশীদা বেগম সাঈদকে তথ্য কমিশনার হিসেবে নিয়োগের সংবাদে স্বস্তি প্রকাশ করে টিআইবি ২৮ সেপ্টেম্বর তথ্য অধিকার দিবস হিসেবে সরকারি স্বীকৃতির আহ্বান জানিয়েছে।
আজ এক বিবৃতিতে টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “ বিলম্বে হলেও সরকারের এ নিয়োগের মধ্য দিয়ে কমিশনের কার্যক্রমে আরো গতিশীলতা আসবে বলে আমরা আশা করি। বর্তমান সরকারেরই আগের মেয়াদে তথ্য অধিকার আইন প্রণীত হয়। এর বাস্তবায়নে সরকার উল্লেখযোগ্য ইতিবাচক উদ্যোগও গ্রহণ করেছে। আবার এ সরকারই জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল প্রণয়ণ করেছে, যার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রতিষ্ঠান তথ্য কমিশন।”
তিনি আরো বলেন, “ এই নিয়োগে সরকার যেধরনের বিলম্ব করেছে তা কাম্য নয়। এ ধরনের বিলম্বে কমিশনের কার্যক্রমে গতিশীলতা ব্যাহত হবার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। ভবিষ্যতে অন্যান্য সকল কমিশনেও শূন্য পদের বিপরীতে নিয়োগ প্রক্রিয়া স্বল্পতম সময়ের মধ্যে যথাযথ আইনী প্রক্রিয়া অনুসরণ করে স্বচ্ছতার সাথে ও দলীয় প্রভাবে ঊর্ধ্বে থেকে যোগ্য ব্যক্তিদের এ ধরনের সাংবিধানিক পদে নিয়োগ নিশ্চিত করতে হবে।”
টিআইবি একই সাথে ২৮ সেপ্টেম্বর বিশ্বব্যাপি উদযাপিত ‘আন্তর্জাতিক তথ্য জানার অধিকার দিবস’ কে সরকারিভাবে স্বীকৃতি এবং জাতীয়ভাবে উদযাপনের আহ্বান জানায়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, গত ৩১ আগস্ট এই দাবিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট টিআইবি একটি প্রস্তাব প্রেরণ করে। টিআইবি মনে করে দিবসটিকে সরকারিভাবে স্বীকৃতি প্রদান করা হলে তথ্য অধিকার বাস্তবায়নে যেমন সরকারি সদিচ্ছার সুনির্দিষ্ট প্রতিফলন ঘটবে তেমনি অন্য সকল মানবাধিকার বাস্তবায়নের চাবিকাঠি হিসেবে এই আইনের কার্যকর প্রয়োগ ত্বরান্বিত হবার সুযোগ সৃষ্টি হবে।

Media Contact