• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

TIB expresses concern over inauguration of projects by ACC leadership (Bangla)

দুদকের শীর্ষ নেতৃত্ব কর্তৃক প্রকল্প উদ্বোধনের সংবাদে টিআইবি’র উদ্বেগ;
 জনপ্রতিনিধিদের প্রশ্নবিদ্ধ সম্পদ অর্জনের প্রেক্ষিতে পদক্ষেপ গ্রহণে আরো সক্রিয় হবার আহবান
ঢাকা, ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪: সম্প্রতি দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) চেয়ারম্যান কর্তৃক লক্ষীপুরে সেতু উদ্বোধনের সংবাদে উদ্বেগ জানিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এ ধরণের স্বার্থের সংঘাতমূলক আচরণ পরিহারপূর্বক প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি সমুন্নত রাখার জন্য দুদকের শীর্ষ নেতৃত্বের প্রতি আহবান জানিয়েছে। 
আজ এক বিবৃতিতে টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “সেতু উদ্বোধন করা ও দলীয় রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে দুদক নেতৃত্বের অংশগ্রহণ দুদকের জন্য স্বার্থের দ্বন্দ্ব তৈরি করতে পারে এবং স্বাধীন ও নিরপেক্ষ অবস্থান থেকে কাজ করার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করতে পারে।”
তিনি আরো বলেন, দুদক নেতৃত্বকে স্মরণ রাখতে হবে যে, সরকার কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হলেও দুদক কোন সরকারী প্রতিষ্ঠান নয়। প্রতিষ্ঠানটিকে সকল প্রকার দলীয় আনুগত্য বা প্রভাব থেকে দূরে রাখতে হবে। জনপ্রতিনিধি বা সরকারের মন্ত্রী-আমলার ন্যায় উদ্বোধনের সংস্কৃতি পরিহার করতে না পারলে দুদকের পেশাদারিত্ব খর্ব হবে, ভাবমূর্তি বিনষ্ট হবে। 
তাছাড়া সাবেক ও বর্তমান জনপ্রতিনিধির প্রশ্নবিদ্ধ সম্পদ অর্জন সম্পর্কিত তদন্তের বিষয়ে কোন কার্যকর অগ্রগতির পরিবর্তে দৃশ্যমান দীর্ঘসূত্রতায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন ড. জামান। উক্ত বিষয়ে তদন্ত কার্যক্রম শুরুর ক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনের বৈঠকের উপর নির্ভরশীলতার যুক্তি গ্রহণযোগ্য নয়। সন্দেহভাজন একজনের ক্ষেত্রে অনুসন্ধান শুরু করতে পারলে একই প্রক্রিয়া অন্য সকলের বেলায়ও প্রযোজ্য হওয়া উচিত বলে মনে করে টিআইবি। দশম সংসদ নির্বাচনের প্রেক্ষিতে নির্বাচন প্রত্যাশী সকলের হলফনামার তথ্য একই মাপকাঠিতে বিবেচনায় নিয়ে সম্পূর্ণ বস্তুনিষ্ঠভাবে পেশাদারিত্বের সাথে ও প্রভাবমুক্ত হয়ে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য দুদকের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে টিআইবি। 
উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী দুদক চেয়ারম্যান লক্ষ্মীপুর পৌর এলাকায় দুটি সেতু উদ্বোধন করেন এবং তার সম্মানে লক্ষ্মীপুরের পৌর মেয়র (যিনি একটি রাজনৈতিক দলের নেতা) কর্তৃক আয়োজিত নৈশভোজে অংশগ্রহণ করেন। শুধু দুর্নীতির অনুসন্ধান বা দুর্নীতি বিরোধী প্রচারণা ছাড়া অন্যকোন উদ্দেশ্যে আয়োজিত এ ধরণের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ দুদক নেতৃত্বের জন্য বর্জনীয়।

Media Contact