• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

ফরিদপুরে সাংবাদিকের উপর শারীরিক আক্রমনের ঘটনার প্রভাবমুক্ত বিচার দাবি করেছে টিআইবি

ফরিদপুরে সাংবাদিকের উপর শারীরিক আক্রমনের ঘটনার প্রভাবমুক্ত বিচার দাবি করেছে টিআইবি

ঢাকা, ৮ মে ২০১২: গত  ৪ঠা মে  দৈনিক প্রথম আলোতে প্রকাশিত এক সংবাদে ক্ষুব্ধ হয়ে ক্ষমতাসীন দলের কর্মীরা ফরিদপুর প্রথম আলোর প্রতিনিধি এবং ফরিদপুর সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) সদস্য পান্না বালার উপর শারীরিকভাবে আক্রমন ও লাঞ্ছিত করার ৪ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের উদ্যোগ না হওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে টিআইবি।

এক বিবৃতিতে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান উক্ত ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন,“সুনির্দিষ্ট তথ্যভিত্তিক প্রকাশিত সংবাদের জের ধরে স্থানীয় পর্যায়ের রাজনৈতিক কর্মীরা পান্না বালাকে লাঞ্ছিত করার পর, সংশ্লিষ্ট সকলের বিশেষ করে ফরিদপুর প্রেসক্লাবের, জোর দাবি উপেক্ষা করে স্থানীয় প্রশাসন আইনগত ব্যবস্থা না নেওয়ায় পান্না বালাসহ ফরিদপুরের সাংবাদিকরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। অন্যদিকে, শুধুমাত্র হয়রানীর উদ্দেশ্যে ঘটনার খলনায়েকরা প্রথম আলো সম্পাদক ও নির্যাতিত সাংবাদিক পান্না বালার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেছে। ক্ষমতাদর্পী স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃত্বের চাপে প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তা স্থানীয় পর্যায়ে স্বাধীন সাংবাদিকতার পথকে ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলেছে। আমরা অনতিবিলম্বে সাংবাদিক পান্না বালা নির্যাতনের ঘটনার প্রভাবমুক্ত তদন্তপূর্বক দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জোর দাবি জানাই।

স্বাধীন গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্বপালনে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সরকারের সাংবিধানিক দায়িত্ব ও নির্বাচনী অঙ্গীকার। অথচ, সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে কর্তব্যরত সাংবাদিকদের উপর রাজনৈতিক মদদপুষ্ট প্রভাবশালীদের দ্বারা শারীরিকভাবে আক্রমন ও নিগৃহীত হবার ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় শুধুমাত্র গণতন্ত্রের মূল ভিত্তিই দুর্বল হচ্ছে না, একই সাথে আর্ন্তজাতিকভাবে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হচ্ছে। তাই এ ধরণের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে দৃষ্টান্তমূলক প্রতিকার এবং এর  পুনরাবৃত্তি  রোধে সরকার, বিশেষ করে স্বারাষ্ট্র মন্ত্রী ও তথ্যমন্ত্রীর, আশু হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছে টিআইবি।

Media Contact