• header_en
  • header_bn

 

Corruption increases poverty and injustice. Let's fight it together...now

 

Policy Brief by year


  • Policy Brief

    • Policy Brief on ACC’s Public Hearing as a Means of Controlling Corruption: Effectiveness, Challenges and Way Forward

      ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন খাত ও প্রতিষ্ঠানের ওপর দুর্নীতি প্রতিরোধ ও সুশাসন সহায়ক গবেষণা ও অ্যাডভোকেসি কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের সামাজিক জবাবদিহিতার টুলস ব্যবহারের মাধ্যমে সেবাপ্রদানকারীকে জবাদিহিতার আওতায় আনা এবং সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানে সুশাসন চর্চার ক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তনের লক্ষ্যে কাজ করে চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় জাতীয় ও স্থানীয় সেবা খাত প্রতিষ্ঠানের ওপর দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)-এর সাথে টিআইবি’র বিদ্যমান সমঝোতা স্মারকের আওতায় দুদক পরিচালিত গণশুনানি আয়োজনে বিশেষতঃ স্থানীয় পর্যায়ে গণশুনানি আয়োজনে টিআইবি সহযোগিতা করে থাকে। এই গণশুনানিগুলো কতটুকু কার্যকর হচ্ছে তা মূল্যায়নের লক্ষ্যে টিআইবি “দুর্নীতি প্রতিরোধে ‘দুর্নীতি দমন কমিশন’ কর্তৃক পরিচালিত গণশুনানি: কার্যকরতা, চ্যালেঞ্জ ও করণীয়” শীর্ষক একটি গবেষণা পরিচালনা করে। ৫ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে প্রকাশিত এই গবেষণায় ডিসেম্বর ২০১৪ থেকে জুন ২০১৬ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ১৩ টি গণশুনানির প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে এই উদ্যোগের কার্যকরতা বৃদ্ধিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের...

    • Policy Brief on Land Management and Services in Bangladesh: Governance Challenges and Way-forward

      সরকার সম্প্রতি ভূমিখাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এসব পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে তৃণমূল পর্যায়ে সেবাগ্রহীতাদের থেকে প্রাপ্ত অভিযোগের ভিত্তিতে শুনানীর আয়োজন ও তার আইনগত নিষ্পত্তির উদ্যোগ, নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে হয়রানিমুক্ত ও দুর্নীতিমুক্তভাবে কাক্সিক্ষত ভূমি সেবা প্রদানে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ এবং তৃণমূল পর্যায়ে ভূমি মেলার আয়োজন ইত্যাদি যা টিআইবি’র বিভিন্ন গবেষণা প্রতিবেদনে প্রস্তাবিত সুপারিশের সাথে অনেকাংশে সামঞ্জস্যপূর্ণ। সরকারের এসব উদ্যোগ ভুমি খাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যায়। তবে ভূমি খাতের অনিয়ম-দুর্নীতির ব্যাপকতার পরিপ্রেক্ষিতে আরো অধিকতর উদ্যোগ গ্রহণের প্রয়োজন রয়েছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ খাতের বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির খবর নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে। টিআইবি ২০১৫ সালে ভূমি খাতের ব্যবস্থাপনা ও সেবা কার্যক্রমে  সুশাসনগত চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত করার লক্ষ্যে ‘ভূমি ব্যবস্থাপনা ও সেবা কার্যক্রম: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক একটি গবেষণা পরিচালনা করে। এছাড়া টিআইবি ২০১৫ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে তৃণমূল পর্যায়ে ভূমি সেবা জনবান্ধব করার অংশ হিসেবে...

    • Policy Brief on Governance in the Migration Process: Challenges and the Way Forward

      দেশের অভ্যন্তরে কর্মসংস্থানের চাহিদার চাপ কমানো, বৈদেশিক মুদ্রা তথা জাতীয় আয় ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি, এবং কর্ম-অভিজ্ঞতার মাধ্যমে কারিগরি দক্ষতা বিকাশের ক্ষেত্রে বৈদেশিক কর্মসংস্থান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক কনভেনশনে স্বাক্ষর ও অনুসমর্থনের মাধ্যমে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক অভিবাসনের ক্ষেত্রে অভিবাসী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের জন্য নির্ভরযোগ্য, সমতাভিত্তিক ও মানবিক অবস্থানকে উৎসাহিত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। অন্যদিকে জাতিসংঘের সদস্য-রাষ্ট্র হিসেবে ‘টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ২০৩০’-এর (এসডিজি) অন্তর্ভুক্ত “পরিকল্পিত ও সুষ্ঠু অভিবাসন নীতিমালা বাস্তবায়নসহ অপরাপর উদ্যোগ গ্রহণের মাধ্যমে সুশৃঙ্খল, নিরাপদ, নিয়মিত ও দায়িত্বশীল উপায়ে জনগণের অভিবাসন ও যাতায়াত সহজতর করা” (এসডিজি ১০.৭), “সকল প্রকার দুর্নীতি ও ঘুষ উল্লেখযোগ্য পরিমাণে হ্রাস করা” (এসডিজি ১৬.৫), এবং “জনসাধারণের তথ্য-অধিকার নিশ্চিত করা ও মৌলিক স্বাধীনতার সুরক্ষা দান” (এসডিজি ১৬.১০) করতেও বাংলাদেশ অঙ্গীকারবদ্ধ। বাংলাদেশের ‘প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান নীতি ২০১৬’-এর অন্যতম লক্ষ্য শ্রম অভিবাসন পরিচালনার জন্যে একটি দক্ষ ও...

    • Policy Brief on National Curriculum & Textbook Board (NCTB): Governance Challenges and Way Forward

      জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও মাদ্রাসা শিক্ষায় পাঠ্যপুস্তক সংক্রান্ত কার্যক্রমে মূল দায়িত্ব পালন করে থাকে। এ সকল কার্যক্রমের মধ্যে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায় পর্যন্ত শিক্ষাক্রম ও সিলেবাস নিরীক্ষণ ও সংস্কার, পাঠ্যপুস্তকের পা-ুলিপি প্রণয়ন ও পাঠ্যপুস্তকের কার্যকরতা যাচাই এবং মূল্যায়ন, পাঠ্যপ্স্তুক ও অন্যান্য শিখন-শেখানো সামগ্রী মুদ্রণ, বাঁধাই, পরিবহন, উপজেলা পর্যায় পর্যন্ত সরবরাহ এবং প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে বই বিতরণ উল্লেখযোগ্য। পলিসি ব্রিফ এখানে    

    • Policy Brief on Subordinate Court System of Bangladesh: Governance Challenges and Way Forward

      বাংলাদেশের বিচারিক কাঠামোয় অধস্তন আদালতসমূহ বিচারিক সেবা প্রদানের একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ স্তর। দেশের মোট মামলার বেশিরভাগই এই অধস্তন আদালতগুলোতে বিচারাধীন রয়েছে। আদালত ব্যবস্থার কার্যকরতা বৃদ্ধি ও সাধারণ জনগণের ন্যায়বিচার প্রাপ্তি নিশ্চিত করার স্বার্থে অধস্তন আদালত ব্যবস্থায় সুশাসনের ঘাটতিসমূহ চিহ্নিত করে সেগুলো দূর করা অত্যন্ত জরুরী। টিআইবি বিচার ব্যবস্থার গুরুত্ব বিবেচনায় দীর্ঘদিন যাবৎ দেশের বিভিন্ন আদালত ও বিচারিক সেবা খাত নিয়ে গবেষণা এবং তার আলোকে অধিপরামর্শ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এ সকল কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় এবং অধস্তন আদালত ব্যবস্থায় বিরাজমান চ্যালেঞ্জ চিহ্নিতকরণ ও তা থেকে উত্তরণের উপায় অনুসন্ধানের মাধ্যমে এ ব্যবস্থায় সুশাসন নিশ্চিতকরণে সহায়ক ভূমিকা পালনের উদ্দেশ্যে টিআইবি “বাংলাদেশের অধস্তন আদালত ব্যবস্থা: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়” শীর্ষক একটি গবেষণা পরিচালনা করেছে। গবেষণা প্রতিবেদনটি ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর প্রকাশ করা হয়। এই গবেষণার প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে অধস্তন আদালতের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালনে পেশাগত উৎকর্ষ বৃদ্ধি, স্বাধীনভাবে ও প্রভাবমুক্ত হয়ে ন্যায়বিচার...

    • Policy Brief on Union Digital Centers (UDCs) in Delivering Services: Roles, Potentials and Challenges

      তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহার নাগরিক সেবার প্রসার, অবাধ তথ্য প্রবাহ নিশ্চিত করা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে একটি দেশের শাসনব্যবস্থার উৎকর্ষ বৃদ্ধি ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে উল্ল্যেখযোগ্য ভুমিকা পালন করে। বাংলাদেশ সরকার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির উন্নয়নে অনুকূল পরিবেশ তৈরির লক্ষ্যে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। সরকারের ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ অভীষ্টের বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ই-সার্ভিস বা ডিজিটাইজড পদ্ধতিতে তৃণমূল পর্যায়ে নাগরিক সেবা সহজলভ্য করা এবং সেবাদানে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০০৯ সালে ইউনিয়ন ইনফরমেশন এন্ড সার্ভিস সেন্টার (ইউআইএসসি) প্রতিষ্ঠা করা হয় যা ২০১৪ সালের আগস্ট মাসে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) হিসেবে নামকরণ করা হয়। সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বের ধারণার আলোকে প্রতিষ্ঠিত ইউডিসি’র উদ্দেশ্য হলো তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে সরকারি, বাণিজ্যিক ও বিভিন্ন তথ্য সেবা গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর কাছে সহজলভ্য করা, সেবা প্রদান প্রক্রিয়া সহজীকরণের মাধ্যমে সেবা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে সময়, মূল্য ও  সেবা প্রাপ্তির...

    • Policy brief on Problems Related to Refuge Provided in Bangladesh to Forcibly Displaced Myanmar Nationals (Rohingya): An Assessment of Governance Challenges (Bangla)

      ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) ‘ বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মায়ানমারের নাগরিকদের (রোহিঙ্গা) বাংলাদেশে অবস্থানজনিত সমস্যা: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ বিষয়ক সমীক্ষা’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন গত ০১ নভেম্বর ২০১৭ প্রকাশ করে*। সমীক্ষাটির বিশ্লেষণে বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মায়ানমারের নাগরিকদের (রোহিঙ্গা) জন্যে ত্রাণ, আশ্রয় ও জীবনধারণের জন্য বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও অন্যান্য অংশীজন কর্তৃক আয়োজিত সহায়তার ব্যবস্থাপনায় সার্বিকভাবে কিছু ইতিবাচক পদক্ষেপের দৃষ্টান্ত দেখা যায়। যেমন: সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার সমন্বিত তড়িৎ উদ্যোগ, সার্বিক ব্যবস্থাপনার সমন্বয়ে জেলা প্রশাসনের প্রশংসনীয় ভূমিকা, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও দপ্তর থেকে সরাসরি মাঠ পরিদর্শনের মাধ্যমে তদারকি প্রভৃতি। তবে, সামগ্রিকভাবে ত্রাণ, আশ্রয় ও অন্যান্য সহায়তার ব্যবস্থাপনায় সুশাসন নিশ্চিতকরণে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ ও ঝুঁকি চিহ্নিত করা হয়েছে। যেমন: রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে দীর্ঘমেয়াদে অবস্থানের ঝুঁকি; জাতীয় উন্নয়ন, বিশেষ করে স্থানীয় জনগোষ্ঠীর ওপর আর্থ-সামাজিক প্রভাব; রোহিঙ্গাদের মধ্যে বিকাশমান ক্ষমতা কাঠামো ও এর সম্ভাব্য সামাজিক, রাজনৈতিক...

    • Policy Brief on SDGs’ Target 16.10: Ensure public access to information and protect fundamental freedoms, in accordance with national legislation and international agreements

      ‘এজেন্ডা ২০৩০’ বা এসডিজি’র মোট ১৭টি বৈশ্বিক অভীষ্টের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ অভীষ্ট হচ্ছে এসডিজি ১৬, যেখানে ‘টেকসই উন্নয়নের জন্য শান্তিপূর্ণ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজব্যবস্থার প্রচলন, সকলের জন্য ন্যায়বিচার প্রাপ্তির পথ সুগম করা এবং সকল স্তরে কার্যকর, জবাবদিহিতাপূর্ণ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রতিষ্ঠান বিনির্মাণ’ করার কথা বলা হয়েছে। এসডিজি’র অন্যান্য অভীষ্ট অর্জনের জন্যও এই অভীষ্ট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর অন্তর্ভুক্ত লক্ষ্য ১২টি, এবং সূচক ২৩টি। এসডিজি ১৬ অর্জনের ক্ষেত্রে দুর্নীতি প্রতিরোধ ও সুশাসনের সাথে প্রত্যক্ষভাবে সংশ্লিষ্ট লক্ষ্যগুলোর ওপর ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) সম্প্রতি একটি গবেষণা সম্পন্ন করেছে। এই পলিসি ব্রিফ এসডিজি ১৬’র একটি গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য ১৬.১০, বিশেষকরে তথ্যপ্রাপ্তির অবাধ সুযোগ ও মৌলিক স্বাধীনতা সুরক্ষার লক্ষ্য অর্জনে আইনি ও কাঠামোগত প্রস্তুতি, বাস্তব পরিস্থিতি, এবং বিদ্যমান চ্যালেঞ্জ চিহ্নিত করে তা থেকে উত্তরণে সুপারিশ প্রস্তাব করছে। পলিসি ব্রিফ এখানে  

    • Policy Brief on SDGs’ Target 16.6: Develop effective, accountable and transparent institutions at all levels

      ‘এজেন্ডা ২০৩০’ বা এসডিজি’র মোট ১৭টি বৈশ্বিক অভীষ্টের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ অভীষ্ট হচ্ছে এসডিজি ১৬, যেখানে ‘টেকসই উন্নয়নের জন্য শান্তিপূর্ণ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজব্যবস্থার প্রচলন, সকলের জন্য ন্যায়বিচার প্রাপ্তির পথ সুগম করা এবং সকল স্তরে কার্যকর, জবাবদিহিতাপূর্ণ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রতিষ্ঠান বিনির্মাণ’ করার কথা বলা হয়েছে। এসডিজি’র অন্যান্য অভীষ্ট অর্জনের জন্যও এই অভীষ্ট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর অন্তর্ভুক্ত লক্ষ্য ১২টি, এবং সূচক ২৩টি। এসডিজি ১৬ অর্জনের ক্ষেত্রে দুর্নীতি প্রতিরোধ ও সুশাসনের সাথে প্রত্যক্ষভাবে সংশ্লিষ্ট লক্ষ্যগুলোর ওপর ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) সম্প্রতি একটি গবেষণা সম্পন্ন করেছে। এই পলিসি ব্রিফ এসডিজি ১৬’র একটি গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য ১৬.৬, বিশেষকরে সকল স্তরে কার্যকর, জবাবদিহিমূলক ও স্বচ্ছ প্রতিষ্ঠানের বিকাশের লক্ষ্য অর্জনে আইনি ও কাঠামোগত প্রস্তুতি, বাস্তব পরিস্থিতি, এবং বিদ্যমান চ্যালেঞ্জ চিহ্নিত করে তা থেকে উত্তরণে সুপারিশ প্রস্তাব করছে। পলিসি ব্রিফ এখানে  

    • Policy Brief on SDGs’ Target 16.5: Substantially reduce corruption and bribery in all their forms

      ‘এজেন্ডা ২০৩০’ বা এসডিজি’র মোট ১৭টি বৈশ্বিক অভীষ্টের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ অভীষ্ট হচ্ছে এসডিজি ১৬, যেখানে ‘টেকসই উন্নয়নের জন্য শান্তিপূর্ণ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজব্যবস্থার প্রচলন, সকলের জন্য ন্যায়বিচার প্রাপ্তির পথ সুগম করা এবং সকল স্তরে কার্যকর, জবাবদিহিতাপূর্ণ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রতিষ্ঠান বিনির্মাণ’ করার কথা বলা হয়েছে। এসডিজি’র অন্যান্য অভীষ্ট অর্জনের জন্যও এই অভীষ্ট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর অন্তর্ভুক্ত লক্ষ্য ১২টি, এবং সূচক ২৩টি। এসডিজি ১৬ অর্জনের ক্ষেত্রে দুর্নীতি প্রতিরোধ ও সুশাসনের সাথে প্রত্যক্ষভাবে সংশ্লিষ্ট লক্ষ্যগুলোর ওপর ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) সম্প্রতি একটি গবেষণা সম্পন্ন করেছে। এই পলিসি ব্রিফ এসডিজি ১৬’র একটি গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য ১৬.৫, বিশেষকরে সকল প্রকার দুর্নীতি ও ঘুষ উল্লেখযোগ্য হারে কমানোর লক্ষ্য অর্জনে আইনি ও কাঠামোগত প্রস্তুতি, বাস্তব পরিস্থিতি, এবং বিদ্যমান চ্যালেঞ্জ চিহ্নিত করে তা থেকে উত্তরণে সুপারিশ প্রস্তাব করছে। পলিসি ব্রিফ এখানে  

    << < 1 2 3 4 5 6 > >> (6)

Policy Brief List